৩৬ ঘন্টা পর ঢাকা-উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চল রুটে ট্রেন চলাচল শুরু

0
11

দীর্ঘ ৩৬ ঘন্টা পর ঢাকার সাথে উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের রেলযোগাযোগ পুনরায় চালু হয়েছে। সোমবার বিকেল ৫টা ২৩ মিনিটে রংপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটি মেরামতকৃত রেলসেতু প্রথম অতিক্রম করার মধ্য দিয়ে পুনরায় যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু হয়। এর আগে বিকেল ৪টার দিকে পরীক্ষামূলকভাবে একটি ট্রেন ওই সেতুর উপর দিয়ে চালিয়ে মেরামত কাজটি সুষ্ঠুভাবে শেষ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হন রেলওয়ের কর্মকর্তরা।

৩৬ ঘন্টা পর ঢাকা-উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চল রুটে ট্রেন চলাচল শুরু

এসময় রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের জেনারেল ম্যানেজার খায়রুল আলম, পাকশি ডিভিশনাল রেলওয়ে ম্যানেজার অসীম কুমার তালুকদার ও রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান প্রকোশলী রমজান আলীসহ উর্ধতন কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন। প্রথম ট্রেনটি মেরামতকৃত সেতু পার হওয়ার সময় উপস্থিত এলাকাবাসী উল্লাস প্রকাশ করেন।

টাঙ্গাইল রেলওয়ের সহকারী স্টেশন মাস্টার ইসমাইল হোসেন জানান, পৌলী রেলসেতুর দক্ষিণ পান্তে ধসে যাওয়া জায়গাটি আগে মাটি ফেলে ভরাট করে লোহার গার্ডার বসানো হয়। আর তার ওপর স্লিপার বসিয়ে পুনরায় স্থাপন করা হয় রেললাইন।

টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার পৌলীতে বন্যার পানির তোড়ে এবং দীর্ঘদিন ধরে প্রভাবশালী মহল প্রশাসনকে ম্যানেজ করে এই ব্রিজের নীচ থেকে ও রেললাইন ঘেষে বালু উত্তোলন করার কারণে পৌলী ব্রিজের দক্ষিণ প্রান্তের এ্যাপ্রোচের মাটি ধসে যায়। এতে অন্তত ২০ ফুট জায়গাজুড়ে গভির গর্তের সৃষ্টি হয়। রোববার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। তখন থেকেই ঢাকার সাথে উত্তরাঞ্চল ও দক্ষিণাঞ্চলের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েন এই রুটে চলাচলকারী যাত্রীগণ। এ অবস্থায় এই রেললাইনের দুইপ্রান্তে ও দুইপাড়ের মাঝপথে বেশ কয়েকটি ট্রেন যাত্রী নিয়ে আটকা পড়ে। ঢাকা থেকে কলকাতাগামী মৈত্রী এক্সপ্রেসসহ বাকি ট্রেনগুলোর যাত্রা স্থগিত করা হয়। রোববার সকাল থেকেই পাকশী ও ঢাকা থেকে রেলওয়ের প্রকৌশলী বিভাগের কর্মীরা সেতু মেরামতের কাজ শুরু করেন।

রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী রমজান আলী বলেন, রোববার দুপুর থেকে সোমবার বিকাল পর্যন্ত দুই শতাধিক শ্রমিক সাথে নিয়ে একটানা কাজ করে পৌলি রেল সেতুর ধসে যাওয়া অংশের মেরামত করি। সোমবার বিকাল সাড়ে ৫টা ২৩ মিনিটে রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটি চলাচলের মাধ্যমে এই অঞ্চলে রেল চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক ও রেলওয়ে সচিব মোফাজ্জল হোসেনসহ রেলওয়ের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা রোববার দুপুরে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। তারা দ্রুত মেরামত কাজ সম্পন্ন করার তাগিদ দেন। সোমবার রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের জেনারেল ম্যানেজার খায়রুল আলম, পাকশি ডিভিশনাল রেলওয়ে ম্যানেজার অসীম কুমার তালুকদার ও রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান প্রকোশলী রমজান আলী মেরামত কাজ দেখভাল করেন। রোববার ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক অবৈধভাবে বালু উত্তোলণকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ারও আশ্বাস দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here