সম্পর্কে যৌনতা প্রশ্নে প্রাধান্য দেয় কারা, নারী না পুরুষ?

কোনও সম্পর্কে আবদ্ধ অবস্থায় যৌনতার আকাঙ্খা কার মধ্যে বেশি থাকে? নারী না পুরুষ? এই প্রশ্ন তকর্যোগ্য। সাধারণত কাউকে এই প্রশ্ন করলে হয়তো উত্তর পাবেন, পুরুষরাই যৌনতায় বেশি আগ্রহী। কিন্তু এই ধারণা এখন শুধু পুরনোই নয়, বাতিলও বটে। ২০১৭-ই দাঁড়িয়ে এক কথায় এই প্রশ্নর উত্তর পেতে চাইলে আপনাকে বোকা বনতে হবে।

যৌনতা
সম্প্রতি Voucher Codes Pro এক সমীক্ষা করে এই প্রশ্নের যে উত্তর খুঁজে পেয়েছে, জানতে তাজ্জব হতে হয়। সংস্থার তরফে প্রায় আড়াই হাজারেরও বেশি নারী ও পুরুষের উপর একটি সমীক্ষা চালিয়ে জানতে চাওয়া হয়, সম্পর্কে কে বেশি যৌনতা চায়? নারী না পুরুষ? যাঁদের এই প্রশ্ন করা হয়েছে, তাঁরা প্রত্যেকে প্রাপ্তবয়স্ক। সমীক্ষার ফলাফল বলছে, মহিলাদেরই যৌনতার দাবি বেশি। অন্তত বর্তমান যুগে।

প্রায় ৫৯ শতাংশ মহিলা জানিয়েছেন, প্রেম করার সময় তাঁরাই পার্টনারের মনে যৌনতার আগুন উসকে দিয়েছেন। মুখ ফুটে না বললেও হাবেভাবে নিজেদের যৌন চাহিদা প্রকাশ করেছেন।

Sex image

অন্যদিকে, শতকরা মাত্র ৪১ জন পুরুষই সম্পর্কে থাকাকালীন যৌনতায় আগ্রহ প্রকাশ করেন। এই সমীক্ষায় আরও বেশ কিছু বিস্ফোরক তথ্য উঠে এসেছে। যেমন, ২১ শতাংশ দম্পতি নিজেদের মধ্যে অতীতের যৌনজীবন নিয়ে ঝগড়া করেন। শুধু তাই নয়, অনেকেই তাঁদের পার্টনার ‘লেজি’ বলে অভিযোগ করেছেন। শতকরা ৩২ জন মহিলা দাবি করেছেন, স্রেফ আলসেমির জন্য তাঁদের স্বামী বা বয়ফ্রেন্ড সেক্স করতে চান না। ৩৪ শতাংশ মহিলা এও জানিয়েছেন, তাঁদের সেক্স লাইফে মশলার অভাব রয়েছে। স্রেফ বেডরুমে ভালবাসা তাঁরা চান না। রান্নাঘরে, বারান্দা এমনকী গ্যারাজেও যৌন মিলনে রাজি তাঁরা। কিন্তু আলসেমির জন্য বা কেউ দেখে ফেলতে পারে এই ভয়ে তাঁদের স্বামীরা বেডরুমের বাইরে নগ্ন হতেই চান না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here