‘শয়তান-২’গোটা একটা দেশকে ধ্বংস করতে সক্ষম

0
174

russian satan 2 missile

এক আঘাতেই একটি গোটা দেশ ধ্বংস করার ক্ষমতাসম্পন্ন এবং হিরোশিমায় ফেলা বোমার চেয়ে এক হাজার গুণ বেশি শক্তিশালী আন্তঃমহাদেশীয় পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্রর পরীক্ষা চালিয়েছে রাশিয়া। শুক্রবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মস্কো থেকে প্রায় ৮০০ কিলোমিটার দূরে মহাকাশকেন্দ্র প্লেসটেক কসমোড্রোম থেকে শয়তান-২ নামের পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্রের পরীামূলক উৎপেণ করা হয়েছে। ভয়ঙ্কর শক্তিধর এ ক্ষেপণাস্ত্রকে আরএস-২৮ সারমাতও বলা হয়।

উৎপেণের পর পাঁচ হাজার ৭৬০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে রাশিয়ার কুরা অঞ্চলে গিয়ে পড়ে সেটি। রাশিয়া তাদের দূরপ্রাচ্যের কুরা অঞ্চলে আন্তঃমহাদেশীয় বিধ্বংসী পেণাস্ত্র (আইসিবিএম) ফেলে এর প্রভাব পরীা করে। বলা হচ্ছে, শয়তান-২ পেণাস্ত্র একসাথে ১২ থেকে ১৬টি পরমাণু বোমা বহনে সম এবং এর এক আঘাতে একটি পুরো দেশ ধ্বংস হয়ে যেতে পারে।

শয়তান-২ বা আরএস-২৮ সারমাত যে নামেই ডাকা হোক না কেন, বলা হচ্ছে এটিই রাশিয়া এবং এই মানব গ্রহের সবচেয়ে শক্তিশালী ও প্রাণঘাতী পেণাস্ত্র। যুক্তরাজ্যের সংবাদপত্র দি সান জানিয়েছে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় জাপানের হিরোশিমা ও নাগাসাকিতে ফেলা বোমার চেয়ে এক হাজার গুণ বেশি শক্তির বোমা বহনে সক্ষম শয়তান-২। ১৬টি বোমা বহনে সম এই পেণাস্ত্রের এক আঘাতে ফ্রান্সের মতো দেশ ধ্বংস হয়ে যেতে পারে।

চলতি বছরের শুরুর দিকে মস্কো ভিক্টোরি ডে প্যারেডের মহড়ায় দেখা গিয়েছিল আরএস-২৮ সারমাত। শয়তান-২ উৎপেণ স্থান থেকে প্রায় ১১ হাজার কিলোমিটার পথ উড়ে গিয়ে ল্যবস্তুতে আঘাত করতে পারে। এর ওজন ১০০ টন। আনুষ্ঠানিক নাম আরএস-২৮ সারমাত হলেও বলা হচ্ছে, এই পেণাস্ত্রের মাধ্যমে সাবেক সোভিয়েত আমলের পেণাস্ত্র সমতায় ফিরতে চান প্রেসিডেন্ট পুতিন।
রাশিয়ার পেণাস্ত্র উৎপাদন কোম্পানি ম্যাকেয়েভ ডিজাইন ব্যুরো আরএস-২৮ সারমাত তৈরি করেছে। এমন সময় এই পেণাস্ত্রের পরীা চালানো হলো যখন পরমাণু বোমা ফেলতে সম হাইপারসনিক পিএকে-ডিএ যুদ্ধবিমান তৈরি করছে পুতিন সরকার। বিবিসি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here