রোহিঙ্গাদের হাতে বাংলাদেশী খুন!

0
68

rohinga

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের একটি অংশ দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠছে। ঝগড়া-বিবাদ, কথায় কথায় উগ্র আচরণ, ছুরিকাঘাতে খুনসহ বিভিন্ন অপরাধকর্মে জড়িয়ে পড়ছে এই অংশটি।

শুধু নিজেদের ভিতরই ঝগড়া-বিবাদে লিপ্ত হচ্ছে তা নয়, স্থানীয় বাসিন্দাদের ওপরও চড়াও হচ্ছে এখন রোহিঙ্গারা। এতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন স্থানীয়রা। ফলে দিন দিন এখানকার পরিবেশ হয়ে উঠছে অসহিষ্ণু, অপ্রীতিকর।

সর্বশেষ গতকাল বিকালে রামুতে এক রোহিঙ্গা যুবকের হামলায় আবদুল জব্বার (২৮) নামে স্থানীয় এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। এর আগে শুক্রবার মধ্যরাতে রোহিঙ্গাদের হামলায় আহত হয়েছেন স্থানীয় চার ব্যক্তি। উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পসংলগ্ন আন্তর্জাতিক বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এমএসএফ পরিচালিত হাসপাতাল ও একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতদের দুজন নলকূপমিস্ত্রি বলে জানা গেছে। উখিয়া থানার ওসি মো. আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শুক্রবার রাত ১টার দিকে বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় ডাকাত সন্দেহে স্থানীয় কয়েক বাংলাদেশির ওপর রোহিঙ্গারা হামলা চালায়। এতে চারজন আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে। আহতরা ধারালো অস্ত্রের আঘাতে জখম হয়েছেন।

উখিয়া থানার ওসি আবুল খায়ের বলেন, হামলায় জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চালানো হচ্ছে। পুলিশ ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ১৯ অক্টোবর রোহিঙ্গা দুই সহোদরের ছুরিকাঘাতে আহত হয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের আবু ছিদ্দিক। দুই দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে ২১ অক্টোবর ভোরে তিনি মারা যান।

মহিষ বিক্রিকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গা মোহাম্মদ হোছনের ছেলে কালা মিয়া ও ধলা মিয়ার সঙ্গে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে আবু ছিদ্দিককে মারধর ও ছুরিকাঘাত করা হয়। সর্বশেষ শনিবার টেকনাফের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি ব্লকে রোহিঙ্গা নারী দিলবাহার ও তার স্বামী সৈয়দ আহমদ অবৈধভাবে একটি মুদির দোকান বসানোর চেষ্টা করছিলেন। এতে নয়াপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এসআই) কবির আহমদ বাধা দিলে রোহিঙ্গা দম্পতি তার ওপর চড়াও হন। এ ঘটনায় এসআই কবিরের মাথা ফেটে গেলে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

রামুতে রোহিঙ্গা যুবকের হামলায় একজন নিহত, আটক ২ : কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজারের রামুতে এক রোহিঙ্গা যুবকের হামলায় এক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিহত আবদুল জব্বার (২৮) উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের খেদারঘোনা এলাকার বশির আহমদ ফকিরের ছেলে। গতকাল বিকাল ৩টার দিকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে রামু থানার ওসি মো. লিয়াকত আলী জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here