যে ১০ পর্ন তারকাকে সবচেয়ে বেশি খোঁজা হয় ইন্টারনেটে (ছবি সহ)

0
103

পর্ণ তারকাদের নিয়ে কৌতূহলের শেষ নেই। কিভাবে তাঁরা এই পেশায় এলেন? কেনই বা বেছে নিলেন এই ধরণের পেশাকে? শুধুই কিই রুজির টান? না কি অন্য কোনও কারণ?

পর্ন ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আলোড়ন ফেলেছেন এমন শীর্ষ ১০ তারকাকে নিয়ে এই আয়োজন। পর্ন তারকাদের সার্চের তালিকায় সবার উপরে রয়েছেন লেবাননে জন্মগ্রহণকারী মিয়া খলিফা। বিশ্বের জনপ্রিয় পর্নস্টারদের তালিকায় সবাইকে পেছনে ফেলে মিয়া বর্তমানে বিশ্বের এক নম্বরে রয়েছেন। ভারতীয় সিনেমার বর্তমান তারকা সানি লিওনের ঠাঁই হয়েছে টপ১০ সার্চের তালিকায়।

নিচে দেখুন শীর্ষ ১০ তারকার পরিচিতি

১। মিয়া খলিফা: ২০১৪ সালে পর্ন জগতে আসা মিয়া খলিয়া ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে বিশ্বের এক নম্বর পর্ন তারকার স্থানটি দখল করে নেয়। ২২ বছর বয়সী মিয়া খালিফা পর্নহাব সাইটের সবচাইতে বেশী জনপ্রিয় পর্ন তারকা। বর্তমানে সে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় বসবাস করে

২। লিসা আন: বিশ্বের সেরা যতো পর্ন তারকা তাদের মধ্যে দ্বিতীয় অবস্থানটি দখলে আছে লিসা আনের। ১৯৯৪ তে লিসা আন জনপ্রিয় পর্ন তারকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। ১৯৯৭ সালে এইডস ঝুকির কারণে পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ বন্ধ করে দেয় লিসা আন। ১০ বছর পর ২০০৬ সে আবার ফিরে আসে জগতে। ২০১০ সালে আবারো সে পর্ন অ্যাওয়ার্ডের স্বীকৃতি পায়

৩। ম্যাদিসন আইভিনাচে দক্ষতার মাধ্যমে পর্ন জগতে পা রাখে ম্যাদিসন আইভি। এই পর্ন তারকা মুলত জার্মানিতে জন্মগ্রহণ করে। পর্ন জগতে তার পথ চলা শুরু হয় টেক্সাস থেকে

৪। আসা আকির: খুব অল্প বয়সে পর্ন জগতে আসা আসা আকির এর নামের শেষ অংশটি মুলত ২০১১ সালে মুক্তি পাওয়া আকিরা সিনেমা থেকে নেওয়া। এখন পর্যন্ত তালিকা ভুক্ত ১০০ জন পর্ন তারকার মধ্যে আকিরার অবস্থান চার নম্বরে। এশিয়ার টপ ৫০ জন পর্ন তারকার মধ্যে তার অবস্থান এখন পর্যন্ত নম্বরে। পর্নগ্রাফিতে অভিনয়ের জন্য আকিরা পর্যন্ত অনেক গুলো পুরস্কার পেয়েছেন

৫। কিম কারদাসিয়ান: কিম কারদাসিয়ান লস এঞ্জেলসের ৫তম পর্ন তারকা। ২০০৩ সালে কিম তার বয়ফ্রেন্ড রেএর সাথে কারদাসিয়ান নামে একটি সেক্স টেপ তৈরি করে। যা ২০০৭ সালে প্রকাশ হয়ে পড়ে। বর্তমানে তার আয় ছয় মিলিয়ন ডলার

 

৬। ব্রান্ডী লাভ: আমেরিকান পর্ন তারকা এবং ফটোগ্রাফিক মডেল। একই সাথে দুটি মাল্টিমিডিয়া কোম্পানির অংশীদার এবং চিফ ফিনাশিয়াল অফিসার। তিনি সুন্দরী সেক্সি অভিনেত্রী হিসেবে বেশী পরিচিত। ২০০৪ সালেব্রানঈলাভ.কমনামে লাভ এর একটি ওয়েবসাইট প্রকাশ পায়। ২০০৮ সালেগেটিং ওয়াইল্ড সেক্স ফ্রম কনজারভেটিভ ওম্যাননামে একটি বই প্রকাশ করে ব্রান্ডি লাভ

৭। অগাস্ট আমসঅগাস্ট আমস ২০১৩ সালে পর্ন জগতে পা রাখে। তার নিজস্ব স্টাইলের মাধ্যমে সে পর্ন জগতে আসে। অগাস্ট আমস প্রথমসেলফিসনামক একটি বিদ্বেষপূর্ণ সিনেমায় অভিনয় করে। ওই বছর দুইটি অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে অগাস্ট

৮। সানি লিওনইন্দোকানাডিয়ান পর্ন তারকা সানি লিওনের পুরো নাম কারেঞ্জিত কাওর ভোরা। ২০১০ সালে টপ পর্ন স্টারের তালিকায় উঠে আসা সানি লিওন ছিল গুগলের সেরা তালিকায়। যাকে নিয়ে সবচাইতে বেশি সার্চ হয়েছে গুগলে। জেনেসিস ম্যাগাজিনের ১০০ জন পর্ন স্টারের তালিকায় সানি লিওন সেরা ১৩ নম্বরে জায়গা করে নিয়েছিল। বর্তমানে তিনি বলিউডের সেক্সি অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিত

৯। সাসা গ্রে: একই সাথে একজন সঙ্গীত শিল্পী, মডেল এবং জনপ্রিয় পর্ন তারকা। ২০০৬ সালে তাকে পর্ন জগতে প্রথম দেখা যায়। লস এঞ্জেলসে যখন তিনি পর্ন জগতে পা রাখেন তখন তার বয়স সবেমাত্র ১৮ বছর। ২০০৭ সালেবেস্ট থ্রি ওয়ে সেক্স সিনএর জন্য সাসা গ্রেকে পুরস্কৃত করা হয়

১০। আলেক্সিস টেক্সাসআলেক্সিস টেক্সাস টপ ১২ জন পর্ন তারকার মধ্যে অন্যতম। তিনি বিভিন্ন সময়ে তার পারফরমেন্সের জন্য পুরস্কৃত হয়েছেন। মিঃ পেট নামক এক পর্ন তারকাকে বিয়ে করে বর্তমানে তার সঙ্গেই আছেন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here