যে ধরনের মানুষেরা কখনো কাউকে সুখী হতে দেয় না

0
30

YoungCoupleFightingGeneric_large

আপনি কি মানসিক ভাবে খুব শক্ত? সব সময় হাসিখুশি থাকতে পছন্দ করেন? তাহলে সব ধরনের মানুষকে নিজের জীবনে প্রশ্রয় দেবেন না। আমাদের সমাজে এমন কিছু মানুষ আছে যাদের মানসিকতা সবসময় নেতিবাচক।

এই ধরনের সঙ্গ আপনার জীবনকেও বিষিয়ে দিতে পারে। চরিত্রগত বৈশিষ্ট্য দেখে সহজেই চিনে নিন এমন মানুষদের।

সমালোচক এবং বিচারক মানসিকতার মানুষজনের সঙ্গ এড়িয়ে চলুন। এমন কিছু মানুষ আছে যারা সবসময় একপেশে বিচারবুদ্ধি নিয়ে চলে। নিজের মানসিকতাকেই জাহির করার চেষ্টা করে। সমালোচনা ভাল তখনই যখন সেটা যুক্তিগ্রাহ্য। কিন্তু এরা সব কাজেই অনাবশ্যক খুঁত ধরে বেড়ায়—সেটা ভাল হোক বা মন্দ। এই ধরনের মানুষের সঙ্গ জীবনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।

অলস প্রকৃতির মানুষদের কাছে ঘেঁষতে দেবেন না। এই ধরনের মানুষ কখনওই কোনও কাজে উৎসাহ দেখান না। যার প্রভাব চারপাশের মানুষজনের উপরেও পড়ে। এই সঙ্গে পড়লে কিছুদিন পর দেখবেন আপনিও কোনও কাজে উৎসাহ পাচ্ছেন না।

অহংকারী মানুষের সঙ্গ ত্যাগ করুন। আপনার কোনও বন্ধু বা অফিসের সহকর্মী কি কথায় কথায় আপনাকে ছোট করার চেষ্টা করে? দেখায়, নিজেই মহান, একাই কাজের? আপনার যে কোনও কাজকেই অবহেলা করে? তাহলে সাবধান!

ঈর্ষাকাতর সহকর্মী বা বন্ধুর সঙ্গ। এই মানসিকতার লোকজন সামনে খুব ভাল মানুষটির মতো থাকেন। যেন আপনার একান্ত শুভাকাঙ্খী। কিন্তু আড়ালে আপনারই ক্ষতি করার চেষ্টা করতে থাকেন। হিংসার মনোভাব পতনের কারণ। এদের উপেক্ষা করুন।

কিছু মানুষ আছে যারা ভুল হলেই কঠোর শাস্তির বিধান দিয়ে দেয়। ভুল শোধরানোর বিন্দুমাত্র চেষ্টা করে না। দেখবেন, চাহিদা পূরণ না হলেই এদের মানসিকতার আমূল পরিবর্তন হয়ে গেছে। বদলে গেছে কথা বলার ধরনও। এই ধরনের মানুষের সঙ্গ ত্যাগ করুন।

আপনি কি জীবনে অনেক উন্নতি করতে চান? অনেক স্বপ্ন আপনার দু’চোখে? তাহলে লক্ষ্যহীন এবং ছন্নছাড়া বন্ধু বা সহকর্মীদের এড়িয়ে চলুন। আপনার চলার পথে এরাই কিন্তু মূল বাধা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here