যে কারণে সাবেক মন্ত্রী নাজমুল হুদার চার বছরের কারাদণ্ড হল

0
26

Barrister Nazmul Huda

ঘুষের মামলায় সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার চার বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে আদালত তাকে ৪৫ দিনের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়া নাজমুল হুদার স্ত্রী সিগমা হুদা কারাগারে থাকাকালীন সময়কে সাজা হিসেবে গণ্য করে তাকে খালাস দেয়া হয়েছে।

বুধবার বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। অন্যদিকে নাজমুল হুদা নিজেই তার মামলার শুনানি করেন।

২০০৭ সালের ২১ মার্চ দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক মো. শরিফুল ইসলাম ধানমন্ডি থানায় একটি মামলা করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, সাপ্তাহিক পত্রিকা ‘খবরের অন্তরালে’র জন্য মীর জাহের হোসেন নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে দুই কোটি ৪০ লাখ টাকা ঘুষ নেন নাজমুল হুদা ও তার স্ত্রী সিগমা হুদা।

২০০৭ সালের ২৭ আগস্ট বিশেষ জজ আদালত দুর্নীতির অভিযোগে নাজমুল হুদাকে সাত বছরের কারাদণ্ড এবং আড়াই কোটি টাকা জরিমানা করেন। এছাড়া তার স্ত্রী সিগমা হুদাকে তিন বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

রায়ের বিরুদ্ধে নাজমুল হুদা ও সিগমা হুদা আপিল করলে ২০১১ সালের ২০ মার্চ হাইকোর্ট তাদের খালাস দেন। পরে দুদক আপিল করলে ২০১৪ সালের ১ ডিসেম্বর খালাসের রায় বাতিল করে হাইকোর্টে পুনঃশুনানির নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ। পুন:শুনানি গ্রহণের পর হাইকোর্ট আজ এই রায় দেয়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here