যেকোন মুহূর্তে উত্তর কোরিয়ার উপর হামলা হতে পারে!

0
16

B-52s

উত্তর কোরিয়া-যুক্তরাষ্ট্র উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে। যুদ্ধের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত দুটি দেশ, চলছে পাল্টাপাল্টি হুকি।

আর তারই জের ধরে যেকোনো সময় পরমাণু অস্ত্র নিক্ষেপে সক্ষম বোমারু বিমান প্রস্তুত রাখছে যুক্তরাষ্ট্র। মুহূর্তের নোটিশে পরমাণু অস্ত্র ছোঁড়ার জন্য কার্যত প্রস্তুত থাকবে ওয়াশিংটন।

প্রসঙ্গত, কোল্ড ওয়ারের পর এই প্রথম এমন ব্যবস্থা করতে চলেছে যুক্তরাষ্ট্র। মুহূর্তের নোটিশে পরমাণু অস্ত্র ছোঁড়ার জন্য কার্যত প্রস্তুত থাকবে ওয়াশিংটন। বার্কসডেল এয়ার বেসে মোতায়েন করা হবে এই B-52s বম্বারকে।

এ ব্যাপারে মার্কিন জেনারেল ডেভিড গোল্ডফেন জানিয়েছে, ২৪ ঘণ্টার জন্য সজাগ থাকবে ওই বোমারু বিমান। নির্দেশ পেলেই উড়ে যাবে আকাশে। ১৯৯১-এর পর এই প্রথম এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। এছাড়া এই বিমানের জন্য ওই এয়ারবেসটিকেও বিশেষভাবে সাজানো হচ্ছে বলেও জানা গেছে।

জেনারেল গোল্ডফেন আরও বলেন, এইভাবে আসলে যুক্তরাষ্ট্র বার্তা দিতে চাইছে যে ‘আমরা প্রস্তুত’। উল্লেখ্য, গত ৬ অক্টোবর দেশের সামরিক প্রধানদের সঙ্গে দেখা করে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘ঝড়ের আগে শান্ত থাকুন’। আর তার কয়েকদিনের মধ্যেই এরকম একটি সিদ্ধান্তের কথা প্রকাশ্যে এলো।

তবে তিনি এও জানান যে B-52s মোতায়েন করা হলেই যে সব সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে তা নয়। বিপক্ষে কে আছে, তার ওপর পুরো বিষয়টা নির্ভর করছে।

জানা গেছে, যদি ওই বোমারু বিমান ওড়ানোর মত পরিস্থিতি তৈরি হয় তাহলে তার জন্য নির্দেশ দেবেন কমান্ডার অব স্ট্র্যাটেজিক কমান্ড জেনারেল জন হাইটেন ও নর্দান কমান্ডের প্রধান লোরি গিবসন। উত্তর কোরিয়া মিসাইল পরীক্ষা করে বার্তা দেওয়ার শুরু করার পর থেকে একের পর এক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিচ্ছে মার্কিন এয়ার ফোর্স।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here