মুক্তিপণের জন্য অপহরণ, আবার ধরা খেল পুলিশ

0
35

Kidnapping for ransom

সাভারের আশুলিয়ায় ডিবি পুলিশ পরিচয়ে এক ব্যক্তিকে আটক করে মুক্তিপণ আদায়ের সময় শিল্প পুলিশের এক সহকারী উপ-পরিদর্শকসহ পাঁচজনকে আটক করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ। এদের মধ্যে একজন নারীও আছেন।

বুধবার গভীর রাতে আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। এ সময় জিম্মি করে রাখা ব্যক্তিকেও উদ্ধার করে পুলিশ।

আটককরা হলেন- শিল্প পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মকবুল হোসেন, তার সহযোগী বিপ্লব, স্বপন ও সানজিদা আক্তার সুমি। বাকি একজনের নাম জানা যায়নি।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল আউয়াল পাঁচজনকে আটকের বিষয়টি ঢাকাটাইমসকে নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, রাতে বাইপাইল কাঁচাবাজার এলাকায় শামীম নামে এক যুবককে জিম্মি করে তার পরিবারের কাছ থেকে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টা করছিল একটি চক্রটি। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ডিবি পুলিশ স্টিকার লাগানো একটি সাদা মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্রো চ ৫৬-১৫১৯) আটক করে। পরে সেখানে থাকা পুলিশের ব্যবহৃত একটি ওয়্যারলেস সেট, দুটি হ্যান্ডকাফ, নগদ ৪৬ হাজার ৮০০ টাকা উদ্ধার করে। এ সময় জিম্মি অবস্থা থেকে শামীম নামে ওই যুবককেও উদ্ধার করা হয়। শামীমের শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে।

এ ব্যাপারে ঢাকা শিল্প পুলিশ-১ এর পরিচালক সানা শামীনুর রহমান শামীম জানান, শিল্প পুলিশের এএসআই মকবুল হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে শিল্প পুলিশের পক্ষ থেকে ঘটনা তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাদের ব্যাপারে বিস্তারিত জানাতে দুপুরে সংবাদ ব্রিফিং করবে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ২৫ অক্টোবর কক্সবাজারের টেকনাফ পৌরসভার এক ব্যবসায়ীকে ক্রসফায়ারের হুমকি দিয়ে আদায় করা ১৭ লাখ টাকাসহ পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) ছয় সদস্যকে আটক করেছিল বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একটি দল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here