বুক ঘষে ঘষে রাম রহিম মহিলা শিষ্যদের কাছে পৌঁছাতেন, মিলল নতুন তথ্য!!

0
7

ডেরা সচ্চা সওদাতে তল্লাশি অভিযানে খোঁজ পাওয়া গেল নতুন তথ্যের। নিরাপত্তা বাহিনীর চোখ কপালে উঠল।

শুক্রবার থেকে বাবা গুরমিত রাম রহিমের ডেরায় তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে। সেখান থেকে নিত্যনতুন জিনিসের খোঁজ মিলছে।

শনিবার রাম রহিমের ডেরায় খোঁজ পাওয়া গেল একটি সুড়ঙ্গের। যে সুড়ঙ্গটি বাবার ‘গুফা’ থেকে সরাসরি সাধ্বী বা মহিলা শিষ্যদের হোস্টেলের সঙ্গে যুক্ত।
হরিয়ানা সরকারের তথ্য ও জনসংযোগ দফতরের ডেপুটি ডিরেক্টর সতীশ মিশ্র জানান, ‘‘ডেরা প্রধান যে গুফাতে থাকতেন, সেখান থেকে ফাইবার দিয়ে বানানো একটি সুড়ঙ্গের খোঁজ মিলেছে। যা গিয়ে সাধ্বী নিবাসে গিয়ে মিশেছে।’’
এই গুফায় কেউ ঢুকতে পারতেন না। বিশেষ কয়েকজনের প্রবেশাধিকার থাকলেও, তাদের মেশিনে আঙুলের ছাপ দিয়ে দরজা খুলে ঢুকতে হত।

অন্য একটি ফাইবার টানেল মাটি দিয়ে বোজানো রয়েছে বলেও জানিয়েছেন সতীশ। তবে সেটি কোথায় গিয়েছে তার খোঁজ এখনও মেলেনি।
শুধুই সুড়ঙ্গ নয়, ডেরার প্রধান কার্যালয়ের মধ্যে একটি অবৈধ বাজি কারখানা ও রাসায়নিকের খোঁজও মিলেছে।
গত মাসেই দুই সাধ্বীকে ধর্ষণের মামলায় ২০ বছরের জেল হয়েছে রাম রহিমের। তিনি এখন রোহতকের জেলে দিন কাটাচ্ছেন।

কোর্টের নির্দেশেই এই তল্লাশি অভিযান চলছে। ৮০০ একর এলাকা জুড়ে রয়েছে ডেরা সচ্চা সওদার প্রধান কার্যালয়। মোট ১০টি জোনে ভাগ করে চলছে এই তল্লাশি অভিযান। ডেরা থেকে বাতিল টাকার নোট ও ডেরার মধ্যে প্রচলিত প্লাস্টিকের কয়েনও পাওয়া গিয়েছিল।
পুরো তল্লাশি অভিযানই ভিডিও ক্যামেরায় তুলে রাখা হচ্ছে। সিরসাতে নেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here