দক্ষিণ আফ্রিকায় কঠোর অনুশীলনে টাইগাররা

0
11

প্রথম টেস্ট শুরু হবে আগামীকাল। রোববার বেনোনি থেকে প্রথম টেস্টের শহরে পৌঁছালেও অনুশীলন করেনি বাংলাদেশ দল। প্রথম দিন বিশ্রামে কাটালেও পরের দিন সময় নষ্ট করেনি টাইগাররা, নেটে ঘাম ঝরিয়ে শুরু করেছে টেস্ট সিরিজের প্রস্তুতি।

দক্ষিণ আফ্রিকায় কঠোর অনুশীলনে টাইগাররা

প্রথম টেস্টের ভেন্যু পচেফস্ট্রুমের সেনওয়েস পার্কে কঠোর পরিশ্রম করেছেন মুশফিক-তামিমরা। টাইগারদের জন্য সুখবর, চোট থেকে সেরে উঠে নেটে বেশ কিছুক্ষণ ব্যাটিং করেছেন তামিম ইকবাল। গত বৃহস্পতিবার ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনে ডান উরুর পেশিতে টান পড়েছিল বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল ব্যাটসম্যানের। ওই ম্যাচের শেষ দিনে ফিল্ডিং করতে গিয়ে কাঁধে ব্যথা পাওয়া সৌম্য সরকার অবশ্য অনুশীলনে ছিলেন না। ভিসা জটিলতায় দলের সঙ্গে যেতে পারেননি রুবেল হোসেন। গত শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকায় পা রাখা এই পেসার অনুশীলন করলেন। অনুশীলন শেষে দেশটির কন্ডিশন নিয়ে তার কণ্ঠে ফুটে উঠলো উচ্ছ্বাস, দক্ষিণ আফ্রিকায় পেস বোলাররা অনেক সুবিধা পেয়ে থাকে। এখানকার উইকেটে অনেক বাউন্স থাকে। কন্ডিশনের কারণে বল দারুণ সুইংও করে। এটা পেস বোলারদের জন্য আদর্শ জায়গা। প্রোটিয়াদের মাটিতে দ্রুত মানিয়ে নিয়ে বোলিং করার লক্ষ্য রুবেলের, আমাদের দলের পেসাররা পরিকল্পনা অনুযায়ী বোলিং করতে পারলে সাফল্য পাওয়া সম্ভব। এখানে জোরে বোলিং করার পাশাপাশি লাইন-লেন্থ ঠিক রাখাও জরুরি। পচেফস্ট্রুমে প্রথম টেস্ট খেলে টাইগাররা উড়ে যাবে ব্লুমফন্টেইনে। সেখানে ৬ অক্টোবর শুরু হবে দ্বিতীয় টেস্ট। এরপর তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজের আগে ১২ অক্টোবর ব্লুমফন্টেইনে আরেকটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে  টাইগাররা। ১৫, ১৮ ও ২২ অক্টোবর তিনটি ওয়ানডের ভেন্যু কিম্বার্লি, পার্ল ও ইস্ট লন্ডন। এরপর ২৬ ও ২৯ অক্টোবর ব্লুমফন্টেইন ও পচেফস্ট্রুমে হবে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ৩০ অক্টোবর টাইগারদের দেশে ফেরার কথা।  বিশ্রাম নেওয়ায় টেস্ট সিরিজে সাকিব আল হাসানকে পাচ্ছে না বাংলাদেশ। তবে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলবেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here