তামিমের পর সাকিবও ফিরে গেলেন! কিছুটা চাপে বাংলাদেশের ব্যাটিং

0
5

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যখন ব্যাটিংয়ে নেমেই ব্যর্থ হচ্ছেন সৌম্য-ইমরুলরা তখন চার ছক্কার ফুল ঝুড়িতে দারুণ খেলছিলেন তামিম ইকবাল। কিন্তু সেঞ্চুরির দ্বার প্রান্তে এসেও বঞ্চিত হলেন তামিম।

প্যাট কামিন্সের লাফিয়ে ওঠা বলটি খেলতে চাননি তামিম। কিন্তু বিধি বাম গ্লাভসে আলতু ছুয়ে যায় বলটি। আম্পায়ার প্রথমে আউট দেননি। তাই রিভিউ নেন স্মিথ। আর পরপর দুই ইনিংসে সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে ফিরতে হল তামিমকে। কারণ কিছুই করার ছিল না তার। তামিম ফিরেছেন ৭৮ রানে। খেলেছেন ১৫৫ বল, যেখানে ৮টি চারের মার ছিল। এর পর মাঠে আসেন সাকিব। কিন্তু সাকিব আজ ব্যাটে প্রত্যাশা মিটাতে পারেননি। সাকিব লিওনকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ক্যামিন্স এর হাতে তালু বন্ধি হন। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তৃতীয় দিনে ৫ উইকেট হারিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ১৪৫ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। লিড পেয়েছে ১৮৮ রানের।

এর আগে ৪৫ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে বাংলাদেশ। সোমবার দ্বিতীয় দিনে বাংলাদেশের লিড ছিল ৮৮ রানের। এর আগে বাংলাদেশের ২৬০ রানের জবাবে অজিরা ২১৭ রানে অলআউট হলে ৪৩ রানের লিড পায় টাইগাররা।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে আবারও ব্যর্থ হন ওপেনার সৌম্য সরকার। মাত্র ১৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন এ বামহাতি ওপেনার।

রোববার সফরকারীদের বিপক্ষে টস জিতে আগে ব্যাট করে তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসানের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ২৬০ রান করেছিল বাংলাদেশ। সাকিব ৮৪ এবং তামিম ৭১ রান করেন। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে পেট কামিন্স, নাথান লায়ন ও অ্যাস্টন আগার প্রত্যকেই ৩টি করে এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ১টি উইকেট লাভ করেন।

জবাব দিতে নেমে সাকিব ও মিরাজের ঘূর্ণিতে মাত্র ২১৭ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া। ম্যাট রেনশ ৪৫, পিটার হ্যান্ডসকম্ব ৩৩, পেট কামিন্স ২৫, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ২৩ এবং অ্যাস্টন আগার ৪১ রানে অপরাজিত থাকেন।

বাংলাদেশের হয়ে সাকিব আল হাসান ৫টি, মেহেদী হাসান মিরাজ ৩টি এবং তাইজুল ইসলাম ১টি উইকেট লাভ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here