ঢাকার রেস্তোরাঁয় রোবটের পরনে ওড়না, চলছে সমালোচনা

0
39

robot-restaorent-

রোবট নাকি মানুষের জায়গা দখল করে নেবে- এমন ধারণা করতেন দূরদৃষ্টি সম্পন্ন অনেক ব্যক্তিই। মানুষের কাজ রোবটই সম্পন্ন করছে, এ ধরনের ঘটনা ইতোপূর্বে বিদেশি রাষ্ট্রগুলোতে ঘটত। কিন্তু পশ্চিমে চাঁদ উঠলে তার জ্যোৎস্না পূর্বেও এসে পড়ে। সেই সূত্রে বাংলাদেশেও চলে এসেছে রোবট দিয়ে কাজ করানোর চল। গত ১৬ নভেম্বর থেকে রাজধানীর আসাদ গেটের নিকটস্থ ফ্যামিলি ওয়ার্ল্ড কনভেনশন সেন্টারের দ্বিতীয় তলায় চালু হয়েছে ‘রোবট রেস্টুরেন্ট। সেখানে খাবার সার্ভ করছে চৈনিক দুটি রোবট। একটি নারী ও একটি পুরুষ রোবট, যাদের উভয়ের নামই ‘ইয়োইদং’ যার মানে ‘চলমান সুখ’।

মূলত শিশু-কিশোরদের বিনোদনের উদ্দেশ্যেই নেওয়া হয়েছে এ বিশেষ উদ্যোগ। অবশ্য সব বয়সী মানুষের জন্য এই রোবট একটি রোমাঞ্চকর পরিবেশ তৈরি করে। রোবট দুটির নির্মাতা প্রকৌশলী ম্যাক্স সোয়াজ ও স্টিভেন শেনের বক্তব্য অনুযায়ী, প্রতিটি রোবটের ওজন ৩০ কিলোগ্রাম এবং উচ্চতা ১ দশমিক ৬ মিটার। রোবটদ্বয় একনাগাড়ে ১৮ ঘণ্টা কাজ করতে সক্ষম। একেকটি রোবট বানাতে আট লাখ টাকা খরচ হয়েছে।

‘ইয়োইদং’ রেস্তোরাঁয় আসা অতিথিদের কাছ থেকে কোনো খাবারের অর্ডার নেবে না; শুধু খাবার সার্ভ করবে। সার্ভ করার সময় পথিমধ্যে কোনো বাধা চলে এলে স্বয়ংক্রিয় ভাবেই থেমে যাবে ‘ইয়োইদং’। ইংরেজি ভাষায় পথ ছাড়ার জন্য অনুরোধও করবে।

সম্প্রতি রোবট দুটির মধ্য একটি রোবট, যেটি মূলত নারীর আদলে তৈরি, সেটির ওড়না পরিহিত ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। রোবটের পরনে ওড়না বিষয়টি মানুষের নজরে এসেছে। চলছে আলোচনা- সমালোচনা। অনেকেই সমালোচনা করে ফেসবুকে পোস্ট দিচ্ছেন। যেমন নাট্যাভিনেতা রওনক হাসান ওড়না পরিহিত রোবটের ছবি নিজ ফেসবুক অ্যাকাউন্টে আপ করে লিখেছেন- ‘রোবট রেস্টুরেন্ট এ রোবটের গায়ে ওড়না! এই রেস্টুরেন্টের মালিক কে জানতে মন চায়! লজ্জা লজ্জা লজ্জা! এদের খাবার অমৃত হলেও তো যাব না। মানসিক বিকৃত এই প্রাণীগুলোকে বয়কট করা উচিত’।

প্রসঙ্গত প্রিয়.কম যোগাযোগ করেছিল রেস্তোরাঁর ব্যবস্থাপক তানভীর তন্ময়ের সঙ্গে। রোবটের গায়ে ওড়না কেন? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি প্রিয়.কমকে বলেন, ‘মূলত নারী রোবটটিকে সনাক্ত করা বা আলাদা করার উদ্দেশ্যেই এর গায়ে ওড়না জড়ানো হয়েছে’।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here