ট্রেনে তরুণীকে উত্ত্যক্ত করে জেলে গেল দুই বখাটে

0
5

ট্রেনে রাতভর এক তরুণীকে উত্ত্যক্ত করার কারণে জেলে যেতে হলো দুই বখাটে যুবককে। ওই তরুণীর বুদ্ধিমত্তা ও সাহসী ভূমিকার কারণেই বখাটেদের সাজা দেওয়া সম্ভব হয়েছে। তবে উত্ত্যক্তের ঘটনায় পাঁচ বখাটে জড়িত থাকলেও তিনজনকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তরুণীকে উত্ত্যক্তের ঘটনা ঘটেছে ঢাকা থেকে রাজশাহীর উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া আন্ত নগর পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনে শুক্রবার রাতে। আর দুই বখাটেকে আটকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে গতকাল শনিবার সকাল ১০টার দিকে।

ট্রেনে তরুণীকে উত্ত্যক্ত করে জেলে গেল দুই বখাটে

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো রাজশাহী নগরীর বোয়ালিয়া থানার দড়িখড়বনা এলাকার মাসুদের ছেলে হাসিম ইকবাল (২১) ও রাজশাহীর চারঘাটের মমিনুল ইসলাম (২৬)। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সমর কুমার পাল এ দণ্ডাদেশ দেন।

রেলওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাত ১১টা ২০ মিনিটে ঢাকা থেকে রাজশাহীর উদ্দেশে ছাড়ে আন্ত নগর পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেন। ওই ট্রেনের ‘ঙ’ নম্বর কোচের যাত্রী ছিলেন রাজশাহী নগরীর সিরোইল কলোনি এলাকার বাসিন্দা রফিকুল ইসলামের মেয়ে মলি খাতুন (২৩)। তিনি বাড়িতে ফিরছিলেন। একই কোচের যাত্রী হয়ে রাজশাহী, পাবনা ও নাটোরে ফিরছিল পাঁচ বখাটে যুবক।

কিন্তু ওই বখাটেরা ট্রেনে ওঠার পর থেকেই মেয়েটিকে নানাভাবে উত্ত্যক্ত করতে থাকে। এতে বাধ্য হয়ে মেয়েটি মোবাইলে ফোনে কৌশলে তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিষয়টি জানান।

এদিকে পাঁচ বখাটের মধ্যে তিনজন ঈশ্বরদী ও আব্দুলপুর স্টেশনে নেমে যায়। আর রাজশাহীতে ফেরার জন্য থেকে যায় দুজন। ভোর ৬টার দিকে ট্রেনটি রাজশাহী স্টেশনে পৌঁছায়। এদিকে স্টেশনে আগেই এসে হাজির হয় মলি খাতুনকে নিতে আসা তাঁর পরিবারের লোকজন। মলি ট্রেন থেকে নেমেই উত্ত্যক্তকারী দুই বখাটে হাসিম ও মোমিনুলকে শনাক্ত করে দেন পরিবারের লোকজনকে। এরপর তারা দুই বখাটেকে ধরে রাজশাহী রেলওয়ে জিআরপি থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

পরে মেয়েটির লিখিত অভিযোগ নিয়ে দুই যুবককে পুলিশ ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সমর কুমার পাল দুই যুবকের প্রত্যেককে ১৯ দিন করে কারাদণ্ড দেন। পরে যুবকদের রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সমর কুমার পাল বলেন, ‘যুবতীকে রাতভর উত্ত্যক্তের দায়ে দুই যুবককে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তবে মেয়েটি অনেকটা সাহসের পরিচয় দিয়েছেন। তাই এ ধরনের সাজা দেওয়া সম্ভব হয়েছে। প্রতিবাদী না হলে ওই দুই যুবককে হয়তো সাজা দেওয়া যেত না। ’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here