গত ১০ বছরে খানদের যেসব ছবি ফ্লপ!

0
20

বলিউডে শাহরুখ খান, সালমান খান ও আমির খান বিশাল একটা অংশজুড়ে বিস্তৃত। তাদের ছবি মানেই হিট। কিন্তু ২০১৭ সালে যেন দর্শক তাদের উপর থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। সালমানের ‘টিউবলাইট’ ও শাহরুখের ‘যাব হ্যারি মেট সেজাল’ বক্স-অফিসে থুবড়েই পড়েছে।

3 khan

এদিকে আসছে আমির খানের নাতুন ছবি ‘সিক্রেট সুপারস্টার’। অনেকেই ভাবছে দুই খানের পথে হাঁটতে হয় নাকি আমিরকে। তবে মজার বিষয় হলো, খানদের এই ব্যর্থতার গল্প কিন্তু নতুন নয়। গত ১০ বছরে সাফল্যের পাশাপাশি প্রচুর ফ্লপ ছবি উপহার দিয়েছেন এই তিন খান। তাহলে জেনে নিন খানদের সেই ফ্লপ ছবির গল্প:-
শাহরুখ খান        
বিল্লু বারবার (২০০৯), বক্স-অফিসের আয় ২৩ কোটি রুপি।

ফ্যান (২০১৬), বক্স-অফিসের আয় ৮৪ কোটি রুপি।

যাব হ্যারি মেট সেজাল (২০১৭), বক্স-অফিসের আয় ৬৪ কোটি রুপি।

সালমান খান
সালাম-ই-ইশক (২০০৩), বক্স-অফিসের আয় ২৩ কোটি রুপি।

ম্যারিগোল্ড (২০০৭), বক্স-অফিসের আয় ৯০ লাখ রুপি।

গড তুসি গ্রেট হো (২০০৮), বক্স-অফিসের আয় সাড়ে ১২ কোটি রুপি।

হিরোস (২০০৮), বক্স-অফিসের আয় ১৩ কোটি রুপি।

যুবরাজ (২০০৮), বক্স-অফিসের আয় ১৭ কোটি রুপি।

ম্যায় অর মিসেস খান্না (২০০৯), বক্স-অফিসের আয় সাড়ে সাত কোটি রুপি।

লন্ডন ড্রিমস (২০০৯), বক্স-অফিসের আয় ২৬ কোটি রুপি।

বীর (২০০৯), বক্স-অফিসের আয় ৩৮ কোটি রুপি।

জয় হো (২০১৪), বক্স-অফিসের আয় ১১৬ কোটি রুপি।

টিউবলাইট (২০১৭), বক্স-অফিসের আয় ১১৯ কোটি রুপি।

আমির খান
ধোবি ঘাট (২০১১), বক্স-অফিসের আয় ১৪ কোটি রুপি।

তালাশ (২০১২), বক্স-অফিসের আয় ৯১ কোটি রুপি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here