করুণ ভালবাসার সফল সমাপ্তি: ১৫ তে মা, ১৮ তে বিয়ে!

0
55
Anu Baghel and Sachin Kumar
আনু বাঘেল ও শচীন কুমার জুটির বিয়ে

ভারতের রাজস্থানের আনু বাঘেল মা হয়েছিলেন ১৫ বছর বয়সে। আর যখন তার বয়স ১৮ এবং সন্তানের বয়স দুই বছর তখন তিনি তার সন্তানের বাবা ও প্রেমিক শচীন কুমারকে বিয়ের অনুমতি পেলেন।
তবে আনু আর শচীনের এই সফলতার পেছনে আছে করুণ একটি গল্প।

কিশোর বয়সে নিচুজাতের শচীনের প্রেমে পড়া আনুর পরিবার উচ্চ বর্ণের। একবিংশ শতাব্দীতেও বর্ণপ্রথায় বিশ্বাসী ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের মতো রাজস্থানেও প্রচলিত আছে অনার কিলিং-এর প্রথা। অর্থাৎ, নীচু বর্ণের ছেলের সঙ্গে বিয়ে করে মেয়ে বংশের সম্মানহানী করার আগে তাকে মেরে ফেলতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করবে না তার পরিবার। ফলে সেই অনার কিলিং-এর বলি হতে পারত আনু-শচীনের প্রেমও।

কিন্তু তার আগেই আনু প্রেমিকের বয়স যখন ২১ তখনই তার হাত ধরে পারিয়ে যান। এরপর তারা বেশ কিছুদিন একসঙ্গে থেকেছেন। কিন্তু আনুর বয়স ১৫ হওয়ায় বিয়ে করতে পারেননি।

এদিকে আনুর পরিবার থেকে শচীনের বিরুদ্ধে করা মামলায় ২০১৫ সালের মে মাসে ধরা পড়ে এই জুটি। এ সময় শচীনকে ধর্ষণের মিথ্যা মামলায় জেলেও যেতে হয়। তবে আনুর পরিবার মেয়েকে ফিরে পেলেও সে তখন অন্তঃসত্ত্বা। এ কারণে আনুকে তারা বাড়ি থেকে বের করে দেন। ভাগ্যেয়ের কি পরিহাস! উচ্চ বর্ণের পরিবারের মেয়ে আনুর জায়গা হয় সরকারি এক শিশু আশ্রয়কেন্দ্রে। আর সেখানেই এক কন্যা সন্তানের মা হন আনু।
আর বর্তমানে সেই মেয়ের বয়স দুই বছর। এরইমধ্যে শচীনকে কারাগারে কাটাতে হয়েছে ১৮ মাস। তবে চলতি বছরে ধর্ষণের মিথ্যা মামলা থেকে বেকসুর খালাস পেয়েছেন শচীন। পাশাপাশি ১৬ অক্টোবর ১৮ বছরে পা দিয়েছেন আনু।

শিশু আশ্রয়কেন্দ্র থেকে ১৮ বছর বয়স হওয়ায় এখন কী করবেন- এই কথা জানতে চাইলে শিশু আশ্রয়কেন্দ্রের পরিবারকে আনু জানান, তিনি তার প্রেমিককে বিয়ে করতে চান।
শচীন ও তার পরিবারও সানন্দে রাজি হয় এই প্রস্তাবে। সেই সুবাদেই শিশু আশ্রয়কেন্দ্রের তত্ত্বাবধানে ২৫ অক্টোবর বুধবার এই জুটির বিয়ে সুন্দরভাবেই সম্পন্ন হয়েছে। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here