অবশেষে শ্রীশান্ত কি দেশ ছাড়বেন?

0
13

sreesanth

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিলে) স্পট ফিক্সিংয়ের কারণে ক্রিকেটে আজীবন নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। ২০১৩ সালে ভারতীয় পেসার শান্তাকুমারন শ্রীশান্তের বিপক্ষে এই অভিযোগ ওঠার পর গ্রেপ্তারও হয়েছিলেন। পরে আদালত তাঁকে সব অভিযোগ থেকে মুক্তি দিলেও বোর্ড এখনো নিষেধাজ্ঞা তোলেনি। তাই অন্য পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন তিনি। দেশের হয়ে খেলার সুযোগ না পেলে প্রয়োজনে অন্য দেশের হয়ে খেলতে চান তিনি।

দিল্লির আদালত ২০১৫ সালে শ্রীশান্তকে সব অভিযোগ থেকে মুক্তি দেন। কিন্তু দেশটির ক্রিকেট বোর্ড তাঁর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তোলেনি। তাই বাধ্য হয়ে এ বছরের মার্চে কেরালা হাইকোর্টে মামলা করেন শ্রীশান্ত। দিল্লির আদালত তাঁর ওপর থেকে সব অভিযোগ তুলে নিলেও বোর্ড কেন এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে না? শ্রীশান্ত দাবি করেন এতে তাঁর সাংবিধানিক অধিকার খর্ব হচ্ছে।

টাইমস আব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়, কেরালা হাইকোর্টও একই রায় দিয়েছেন। শ্রীশান্তকে নির্দোষ বলে সব নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু বিসিসিআইয়ের আপিলের পরিপ্রেক্ষিতে কেরালা হাইকোর্ট আবার আজীবন নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখেন। তখনই ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন শ্রীশান্ত।

এ ব্যাপারে শ্রীশান্ত বলেন, ‘বিসিসিআই আমাকে নিষিদ্ধ করেছে, আইসিসি নয়। তাই ভারতে খেলতে না পারলেও অন্য দেশের হয়ে খেলতে আমার কোনো বাধা নেই। ক্রিকেটকে ভালোবাসি. তাই খেলাটা চালিয়ে যেতে চাই আমি।’

একই কারণে নিষিদ্ধ হয়েছিল আইপিএলের দুই দল রাজস্থান রয়্যালস এবং চেন্নাই সুপার কিংস। দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আগামী মৌসুমে আইপিএলে অংশ নেবে দুই ফ্র্যাঞ্চাইজ। অথচ শ্রীশান্তের শাস্তি তুলে নেওয়া হচ্ছে না!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here