অবশেষে পদত্যাগ করলেন বৃটিশমন্ত্রী প্রীতি প্যাটেল

0
19

Preeti Patel

দিনভর নাটকীয়তার পর অবশেষে সরে দাঁড়ালেন ব্রিটিশ মন্ত্রিসভার প্রভাবশালী মন্ত্রী প্রীতি প্যাটেল। ইসরাইলি নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের খবর গোপন করার অভিযোগ মাথায় নিয়ে বুধবার (৮ নভেম্বর) লন্ডন সময় সন্ধ্যায় তিনি পদত্যাগ করেন।

জানা গেছে, সরকারি সফরে আফ্রিকায় ছিলেন প্রীতি প্যাটেল। সেখান থেকে তাকে সফর সংক্ষিপ্ত করে দেশে ফেরত আসতে বলা হয়। দেশে ফেরার পর প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে তাকে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটে ডেকে পাঠান। এর পরপরই তিনি ব্রিটেনের ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট সেক্রেটারি পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

ব্রিটেনের রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, প্রীতি প্যাটেলের পদত্যাগ থেরেসা মে’র সরকারকে আরও একদফা বেকায়দায় ফেলে দিয়েছে।

এর আগে, কথিত যৌন কেলেঙ্কারির জের ধরে গত সপ্তাহে পদত্যাগ করেন ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী মাইকেল ফ্যালন। এরও আগে একই অভিযোগে দু’জন এমপিকে দল থেকে বরখাস্ত করে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি। এছাড়া, যৌন হয়রানির অভিযোগে তদন্ত চলছে উপ-প্রধানমন্ত্রী ডোমিয়ান গ্রিনসহ কয়েকজন প্রতিমন্ত্রী ও এমপির বিরুদ্ধে। এমন প্রতিকূল সময়ে আরেক মন্ত্রীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি ভঙ্গের গুরুতর অভিযোগ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র নেতৃত্বকেও প্রশ্নের মুখে ফেলে দিয়েছে।

জানা গেছে, গত আগস্ট মাসে ছুটি কাটাতে পরিবার নিয়ে ইসরাইলে যান প্রীতি। ওই সময় দুই দিনে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুসহ দেশটির প্রভাবশালী ব্যক্তিদের সঙ্গে মোট ১২টি বৈঠক করেন তিনি। সেখান থেকে ফিরে প্রীতি ইসরাইলি সেনাবাহিনীর জন্য যুক্তরাজ্যের বৈদেশিক সাহায্যের অর্থ বরাদ্দ দেওয়ার সুপারিশ করেন।

গত সপ্তাহে প্রভাবশালী ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রীতি দাবি করেন, যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র দফতর ইসরায়েলে তার অংশ নেওয়া বৈঠকগুলোর বিষয়ে জানত। তবে পররাষ্ট্র দফতর জানায়, তারা এসব বৈঠকের বিষয়ে অবগত ছিল না। ইসরাইলে যুক্তরাজ্যের দূতাবাসকেও এসব বৈঠকের বিষয়ে জানানো হয়নি। নিজের ভুল স্বীকার করে প্রীতি গত মঙ্গলবার ক্ষমা চাইলে বিতর্ক আরও জোরালো হয়। আচরণবিধির চরম লঙ্ঘনের কথা উল্লেখ করে বিষয়টিতে আনুষ্ঠানিক তদন্ত ও প্রীতির পদত্যাগের দাবি তোলে বিরোধী দল লেবার পার্টিও।

গার্ডিয়ান জানিয়েছে, বুধবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সঙ্গে মাত্র ৬ মিনিট কথা হয়। এরপরই প্রীতি পদত্যাগপত্র জমা দেন। এতে তিনি লিখেছেন, একজন মন্ত্রীর কাছ থেকে যেমনটা আশা করা যায়, তার কার্যক্রম সেই মানে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here